1. rezaulalam000@gmail.com : সময় বাংলার :
  2. jmitsolution24@gmail.com : JM IT SOLUTION : JM IT SOLUTION
পদ্মা সেতুর প্রকৌশলীরা নতুন করে যে বিষয়টি নিয়ে ভাবছেন । | সময় বাংলার
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৮:৪৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম ... ||
আগামী ২০ জুলাই নতুন ভাষানচর জুনিয়র ফুটবল টুর্ণামেন্ট ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে শ্রীনগরে ব্র্যাকের ইউনিয়ন  কর্মশালা সময় বাংলার “অন লাইন পোর্টালে খবর প্রকাশের পর ড্রেজার উচ্ছেদ দুই লাখ টাকা জরিমানা মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলেন মুজাহিদুল ইসলাম সিরাজদিখানে বদলিজনিত বিদায় উপলক্ষে সংবর্ধনা ঢাকা-বেইজিং চুক্তি স্বাক্ষরের একটি মুন্সিগঞ্জের নাটেশ্বর আর্কিওলজিকাল সাইট পার্ক প্রকল্প শ্রীনগরে অনূর্ধ্ব-১৭ জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত রাজশাহীর বাগমারায় অনলাইন জুয়ার কালো থাবায় নিঃস্ব হচ্ছে তরুণ-যুব সমাজ জাসদ নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা শফিউর রহমান শফির মুক্তি দাবী রাজশাহীতে বিক্ষোভ শ্রীনগরে যাত্রীবাহী সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নতুন শাখা উদ্ধোধন পাবনায় উপজেলা আ.লীগ সম্পাদকের বিরুদ্ধে হত্যা মামলার প্রতিবাদে অবরোধ বিক্ষোভ -মানববন্ধন সারা দেশে চলমান আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা শিক্ষার্থীদের শ্রীনগরে ড্রেজার দিয়ে কৃষি জমি ভরাটের মহোৎসব  সিরাজদিখানে দুই পক্ষের সংঘর্ষে টেটাবিদ্ধ ৯ আহত ২০ প্রশ্নফাঁসে নিজের সংশ্লিষ্টতা থাকলে পদত্যাগ করার ঘোষণা দিয়েছেন পিএসসি চেয়ারম্যান বুধবার সারাদেশে ‘বাংলা ব্লকেড’ সিরিয়াল কিলার রসু খাঁর ফাঁসির আদেশ বহাল দুর্নীতি একটি দেশের এগিয়ে যাওয়ার পথে সবচেয়ে বড় অন্তরায় কোটা পদ্ধতি বাতিলের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেয়া রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে শুনানি আগামীকাল প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন টঙ্গীবাড়ীতে ইউপি চেয়ারম্যানকে গুলি করে হত্যা কোটা বাতিলের দাবিতে উত্তাল সারাদেশ শ্রীনগরে সনাতন ধর্মালম্বীদের মহোৎসব রথযাত্রা অনুষ্ঠিত সাংবাদিক আলামিন হোসেনের পিতার মৃত্যুতে রাসিক মেয়রের শোক প্রকাশ শ্রীনগরে সাংবাদিকের উপর হামলা ও মিথ্যা অভিযোগের প্রতিবাদে মানববন্ধন পদ্মা সেতুর জন্য বাংলাদেশ বিশ্বে সম্মান পেয়েছে : প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করছেন ‍ঋষি সুনাক স্ট্রোক করেছেন নাফিস ইকবাল,এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে আনা হচ্ছে ঢাকায় কিয়ার স্টারমার যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাজ্যে লেবার পার্টির নিরঙ্কুশ জয়

পদ্মা সেতুর প্রকৌশলীরা নতুন করে যে বিষয়টি নিয়ে ভাবছেন ।

  • সময় বাংলার || বুধবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ২.৪৭ পিএম
পদ্মা সেতুর প্রকৌশলীরা নতুন করে যে বিষয়টি নিয়ে ভাবছেন ।
পদ্মা সেতুর প্রকৌশলীরা নতুন করে যে বিষয়টি নিয়ে ভাবছেন ।

পদ্মা সেতুর প্রকৌশলীরা নতুন করে যে বিষয়টি নিয়ে ভাবছেন ।


মোঃ রুবেল ইসলাম তাহমিদ  মাওয়া মুন্সীগঞ্জ।

পদ্মা সেতু বাংলাদেশ সরকারের  অন্যতম বড় চেলেঞ্জের কাঠামো এই কাজের সর্বশেষ বসেছে যে ৪১তম স্প্যানটি, তারপর থেকেই প্রশ্ন গাড়ি চলবে কবে? সর্বশেষ ৪১ তম এ স্প্যান বাসানো ছাড়াও অন্যান্য কাজও এখন এগিয়ে চলেছে সেতুর ।এরমধ্যে সেতুতে রোডওয়ে স্ল্যাব,২হাজার ৯১৭টির মধ্যে স্থাপিত হয়েছে ১ হাজার ৮৮২টির বেশি। রেলওয়ে স্ল্যাব,২হাজার ৯৫৯টির মধ্যে বসতে বাকি অল্প কিছু। এ ছাড়া সুপার-টি গার্ডার ৪৩৮টির মধ্যে বসেছে প্রায় পোনে ৪শ টি। ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান বসিয়ে ৬দশমিক ১৫কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ সম্পুন্ন। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত এ সেতুর কাঠামো।

শিগগিরই বাস্তব রুপ নিতে যাচ্ছে ১৬ কোটিমানুষের অধ্যুষিত দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের বাসিন্দাদের দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্নগুলো।দেশের সর্ববৃহদ মেগাপ্রকল্প পদ্মা সেতুর মূল অবকাঠামোগত নির্মাণপ্রস্তুতি এখন চলছে জোরেশোরে।দেশের সবচেয়ে বড় অবকাঠামো পদ্মা সেতু টি কারিগরি দিক থেকে নিখুঁতভাবে নির্মাণ হয়েছে বর্তমানে চলছে মূল সেতুর ভেতরে রোড স্লাব বসানোর কাজ সহ চারপাশের টুকি টাকি নানা ধরনের কাজ। তবে পদ্মাসেতুর নকশা অনুযায়ী বাকি সব সমস্যা সমাধান হয়ে থাকলেও পৌষের হাড় কাপানো তীব্র শীতের মৌসুমে ঘন কুয়াশায় যান চলাচলের বিষয়টি নিয়ে এবার প্রকৌশলীদের ভাবাচ্ছে ।যেমন উত্তর বঙ্গের যমুনা নদীর ওপরে গড়া দক্ষিণ এশিয়ার ষষ্ঠ বৃহত্তম বঙ্গবন্ধু সেতুতে ঘন কুয়াশায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ার সমস্যা থাকে প্রতি বছর শীত মৌসুমে,তাই পদ্মাসেতুর প্রকৌশলীদের ভাবাচ্ছে মাওযার এই সেতুতেও থাকুক সে ধরনের জটিলতা,তা চান না সংশ্লিষ্ট সেতু প্রকৌশলীরা।সেতু নির্মাণের অন্য সব জটিল দিক গুলো ভাবতে গিয়ে এ বিষয়টিতে নজরে আসে, এর আগে এ ধরনের ঘন কুয়াশা ছন্য জটিলতা, তেমন আলোকপাত সম্ভব হয়নি। এবার বিষয়টি নতুন করে ভাবাচ্ছে প্রকৌশলীদের।বর্তমানে শীত মৌসুমে প্রায়ই বঙ্গবন্ধু সেতুতে যান চলাচল বন্ধ থাকে ঘন কুয়াশার কারণে । তবে পদ্মা সেতুতে ভবিষ্যতে যাতে এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি না হয় সে জন্য আলো নাকি রঙ নাকি দুটোরই ব্যবহার করতে হবে এবং কী উপায়ে করতে হবে তা নিয়ে কারিগরি পর্যায়ে শুরু হয়েছে নানা ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা।এখন পর্যন্ত ঘন কুয়াশা দূর করতে বাড়তি আলো ব্যবহারের কোনও পরিকল্পনা নেওয়া হয়নি। তবে আলো ব্যবহার না করে নদীবক্ষের ঘন কুয়াশা এড়ানো সম্ভব হবে কিনা তা যথেষ্টই বিবেচনার দাবি রাখে।বঙ্গবন্ধু সেতু কর্তৃপক্ষের দেয়া ও গণমাধ্যমের তথ্য বলছে,শীতের মৌসুমে গেল ২০২০ শালের ডিসেম্বর ও ২০২১ শালের জানুয়ারি মাসে মাঝে মাঝেই ঘন কুয়াশার কারণে বঙ্গবন্ধু সেতুতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।সে সময় সেতুর দুই পাড়ে দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়। এই যানজট দীর্ঘ ৪০/৪৫ কিলোমিটার যাওয়ার এমন রেকর্ডও আছে। এদিকে পদ্মা সেতু দেশের দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে রাজধানীসহ সারাদেশের যোগাযোগ ও অর্থনৈতিক সেতুবন্ধন তৈরি করবে বলেই সরকারিভাবে ভাবা হচ্ছে।সেতুর প্রকৌশলীরা যে বিষয়টি নিয়ে ভাবছেন ।. scaled

যমুনা সেতুর দুই যুগ পরে নির্মিত পদ্মা সেতুতেও যদি একই সংকট থেকে যায় তাহলে সেটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য হবে না। আর এ বিষয়টিই এখন ভাবাচ্ছে প্রকৌশলীদের।তবে, বঙ্গবন্ধু সেতুর মতো পদ্মা সেতুতেও যেন কুয়াশার কারণে যান চলাচল বন্ধ না থাকে এ সকল উপায় খুঁজছেন প্রকৌশলীরা। কোনও বিশেষ ধরনের লাইটিংয়ের ব্যবস্থা করেই কুয়াশার মধ্যেও যান চলাচলের ব্যবস্থা রাখার উপায় খুঁজছেন তারা।তবে এখনো সমাধান নিয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছেন না পদ্মাসেতুর প্রকৌশলীরা।পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রকল্প ব্যবস্থাপক (মূল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বলেন, এ বিষয়ে উন্নয়নের লক্ষে কী করার আছে তা আলোচনা চলছে,সিদ্ধান্ত নেয়া হলে পড়ে জানানো হবে। তবে, সম্প্রতি তিনি জানিয়েছেন, আমরা বঙ্গবন্ধু সেতু পরিদর্শনে গিয়েছিলাম। সেখানে দেখেছি সেতুর টোলপ্লাজায় ডিজিটাল ওয়েদার স্কেল রয়েছে।স্কেলে কুয়াশার ঘনত্ব ৪০ রিখটারের নিচে নেমে এলে দুর্ঘটনার আশঙ্কায় সেতুর ওপর দিয়ে যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়। তবে পদ্মা সেতুতে ঘন কুয়াশার মধ্যেও যেন গাড়ি চলতে পারে তার জন্য ‘হেভি লাইটের’ ব্যবস্থা করার চেষ্টা করা হচ্ছে। অপারেশন মেইনটেনেন্সের সময় অনেক কিছু সংযোজন হয়। এটা তেমন জটিল কিছু নয়।

তবে, প্রকৌশলীরা বলেন, ঘূর্ণিঝড় বা সাইক্লোনের মতো ঘন কুয়াশাও একটি প্রাকৃতিক দুর্যোগ। ঘন কুয়াশার সময় চীনসহ সারা পৃথিবীতে যান চলাচল বন্ধ থাকে।  দেশের সকল সেতুতেও যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। তবে আমরা চেষ্টা করছি বিশেষ লাইটিং ব্যবহারের মাধ্যমে এমন কোনও ব্যবস্থা করার, যাতে আগামী বছর থেকে জনগণের দুর্ভোগ কিছুটা হলেও কমে।এদিকে, পদ্মা সেতুর লাইটিংয়ের ডিজাইন এখনও চূড়ান্ত হয়নি বলে জানা গেছে। প্রক্রিয়া অনুযায়ী, এইকম-এর করা মূল নকশাকে ভিত্তি করে ‘পার্ট বাই পার্ট’ আরও অনেক নকশা করা হয়ে থাকে। সেসব নকশা পরামর্শক প্রতিষ্ঠান যাচাই করার পর বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ (বিবিএ) অনুমোদন করে। এরপরই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সেটা বাস্তবায়ন করে বলে জানা গেছে।

রুবেল ইসলাম.তাহমিদ মাওয়া থেকে ০১৭১১১৪৪৪২১ 3 scaled

তবে, পদ্মা সেতুর মূল কাজ অর্থাৎ সিভিল কন্সট্রাকশন’-এর কাজ শেষ হওয়ার পর লাইটিংয়ের কাজ শুরু হবে।তবে আন্তর্জাতিক মান কোড মেনেই পদ্মা সেতুতে লাইটিং ব্যবহার করা হচ্ছে। আর্কিটেকচার লাইট ও স্ট্রিট লাইট ব্যবহার করা হচ্ছে।  ৩৭.৫০ মিটার পর পর ১২ মিটার উচ্চতার প্রতিটি ল্যাম্পপোস্ট বসানো হবে।তবে ঘন কুয়াশা প্রতিরোধ করার জন্য বিশেষ কোনও লাইটিং ব্যবহার করার ব্যাপারটি প্রস্তাবিত নকশায় নেই।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন ||

আরও সংবাদ ||

                            @  SOMOYBNGLAR # কোনো লেখাছবিভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য

.